ঢাকারবিবার, ২৯শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

আমার কিছু প্রশ্ন আছে, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবো: শামীম ওসমান

নিজস্ব প্রতিবেদক
ডিসেম্বর ২৬, ২০২২ ৯:২৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমান বলেছেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলবো, আমার কিছু কিছু প্রশ্ন আছে। জাতির পিতার কন্যাকে নারায়ণগঞ্জের পরিস্থিতি জানাবো। উনি জানেন আমি সত্য বলি। আমি সত্য ছাড়া মিথ্যা বলি না। ওনাকে জানাবো এবং মাঠে নামবো। আই ডোন্ট কেয়ার (আমি পরোয়া করি না), কে সরকারি অফিসার আর কে সরকারি অফিসার না। শামীম ওসমান আল্লাহর ওপরে ভরসা করে। আর পায়ের নিচে মাটির ওপরে ভর করে মানুষকে নিয়ে রাজনীতি করি। কারও দয়ার টানে আমি রাজনীতি করি না।’


বাংলালাইভের সর্বশেষ খবর পেতে Google News অনুসরণ করু


সোমবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকালে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের নয়া আটি মুক্তিনগর এলাকায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপি ক্ষমতায় আসতে পারবে না উল্লেখ করে শামীম ওসমান বলেন, ‘যারা বিএনপি করেন, ভাবছেন ক্ষমতায় এসে পড়বেন পড়বেন ভাব। আমি তাদের উদ্দেশে বলতে চাই, ক্ষমতায় আসা তো দূরের কথা, ক্ষমতার ৪০ কিলোমিটারের ভেতরেও আপনারা আসবেন না। কিছু দিন আগেে এক ছেলে নারায়ণগঞ্জে মরলো। বিএনপি বলে এটা তাদের কর্মী, আওয়ামী লীগ বলে তাদের লোক। পুলিশ বলে পথচারী। কিন্তু ও একটা মানুষ। কারও ভাই, কারও ছেলে, কারও সন্তান।’

তিনি বলেন, ‘৮০০ কোটি মানুষ পৃথিবীতে আছে, তারা বলুক এই মানুষটাকে জীবিত করে দেবে। আমার কোনও আপত্তি নেই। তবে এই ৮০০ কোটি মানুষ যদি এই মানুষটাকে জীবিত করতে না পারে, তাহলে কাউকে মারার অধিকারও আমাদের নেই।’

মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে মাঠে নামবেন দাবি করে তিনি বলেন, ‘জানুয়ারির শেষে অথবা ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাতে সবাইকে ডাকবো। বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন পঞ্চায়েত কমিটি, মসজিদ কমিটি, ইমাম-মোয়াজ্জিন, মাদ্রাসা কমিটি, স্কুলের শিক্ষক ও স্কুল কমিটি, নারী সমাজের প্রতিনিধি, রাজনীতি দলের প্রতিনিধি, যুবসমাজ-ছাত্রসমাজসহ সাংবাদিকদের ডাকবো। উদ্দেশ্য কী? রাস্তাঘাট আমরা করবো। কিন্তু মাদক-সন্ত্রাস কে বন্ধ করবে? মাদক, সন্ত্রাস, ইভটিজিং, জঙ্গিবাদ, কিশোর গ্যাং বন্ধ করতে হবে। আমার জীবনে সবচেয়ে ভালো কাজ একটাই করতে পেরেছি। নারায়ণগঞ্জ থেকে নিষিদ্ধ পল্লি ওঠাতে পেরেছি। এখন আমি চেষ্টা করবো, আমার এলাকা, ভাইয়ের এলাকা, সোনারগাঁসহ সামনের দিকে কাজ করে ধীরে ধীরে এগোবো। যে যেই দল করুক না কেন সবাই একসঙ্গে কাজ করবো। এছাড়া আমাদের উন্নয়নের কাজ অব্যাহত রয়েছে।’ 
 
এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চন্দন শীল, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি মজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক হাজী ইয়াসিন মিয়া, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইফতেখার আলম খোকন, ৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল প্রমুখ।