ঢাকামঙ্গলবার, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রাজশাহীতে গাছ কেটে পাখি হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন

অনলাইন ডেস্ক । বাংলালাইভ২৪.কম
সেপ্টেম্বর ৯, ২০২১ ৭:৫৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে গাছ কেটে পাখি হত্যার ঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে প্রগতিশীল ছাত্র-শিক্ষক ও শিল্পী-সাহিত্যিক ফোরাম। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে এ মানববন্ধন করা হয়।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আলী আর্সলানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তৃতা করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (রাকসু) সাবেক ভিপি রাগিব আহসান, বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান আলী, কবি ও সাংস্কৃতিক কর্মী নূর-ই-হাফিজা খানম, আবু তালেব, আশির দশকের ছাত্রসংগ্রাম পরিষদের নেতা কামরান হাফিজ, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক রিদম শাহরিয়ার প্রমুখ। মানববন্ধন সঞ্চালনা করেন কণ্ঠস্বর পত্রিকার সভাপতি নাদিম সিনা।

সংহতি জানিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেন গণসংহতি আন্দোলনের রাজশাহী জেলা সমন্বয়কারী মুরাদ মোর্শেদ, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) রাজশাহী জেলার সমন্বয়ক আলফাজ হোসেন, গ্রিন ভয়েস রাজশাহীর সমন্বয়ক আবদুর রহিম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, সারা বিশ্বে যখন পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন জোরালো হচ্ছে। প্রকৃতি বাঁচানোর জন্য পর্যাপ্ত সবুজায়ন করা হচ্ছে। করোনা মহামারির ঠিক সেই মুহূর্তে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গাছ কেটে পাখিগুলোকে হত্যা করা হয়েছে। এটা অমানবিক একটি কাজ। এভাবে যদি প্রাণ-প্রকৃতি ধ্বংস করার উৎসবে সবাই মেতে ওঠে, তবে নিজেদের অস্তিত্ব সংকটে পড়বে। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবিও করেন তাঁরা।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে নালা নির্মাণ ও গাড়ি রাখার চত্বর তৈরি করার জন্য কর্তৃপক্ষ বন বিভাগের মাধ্যমে ২৭টি গাছ কাটে। ৪ সেপ্টেম্বর হাসপাতালের সামনে নালা নির্মাণের জন্য একটি অর্জুনগাছ কাটা হয়। এতে গাছ থেকে পড়ে যায় শামুকখোল পাখির শতাধিক ছানা। বেশির ভাগ ছানা সঙ্গে সঙ্গে মারা যায়। যেগুলো বেঁচে ছিল, সেগুলো মাংস খাওয়ার জন্য জবাই করে নিয়ে যান নির্মাণশ্রমিক ও রোগীর স্বজনেরা।

এ খবর গণমাধ্যমে আসার পরে ফুঁসে ওঠেন পরিবেশবাদীরা। ৬ সেপ্টেম্বর রাজশাহীর পরিবেশবাদী বিভিন্ন সংগঠনের সদস্যরা এই ঘটনার প্রতিবাদ জানান। এরই ধারাবাহিকতায় আজ হাসপাতালের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হলো।