1. banglalivedesk@gmail.com : banglalive :
  2. emonbanglatv@gmail.com : Dewan Emon : Dewan Emon
জাবিতে শরিয়ত সরকারের মুক্তি ও থিয়েটার কর্মীদের ওপর হামলার বিচার দাবি
বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৫৭ অপরাহ্ন

জাবিতে শরিয়ত সরকারের মুক্তি ও থিয়েটার কর্মীদের ওপর হামলার বিচার দাবি

বাংলালাইভ২৪.কম
  • আপডেট সময় রবিবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২০
আরিফুজ্জামান উজ্জল, জাবি করেসপন্ডেন্ট । বাংলালাইভ২৪.কম

বাউলশিল্পী শরিয়ত সরকারের মুক্তি ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) নাট্যব্যক্তিত্ব আনন জামান সহ থিয়েটার কর্মীদের ওপর হামলার বিচার দাবিতে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের নেতাকর্মীরা।

রোববার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার সংলগ্ন সড়কে এ কর্মসূচি পালন করেন তারা।

মানববন্ধনে উপস্থিত হয়ে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট (মার্ক্সবাদী) ও সাংস্কৃতিক জোটের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতাকর্মীরা সংহতি প্রকাশ করেন। এসময় তারা বাউলশিল্পী শরিয়ত সরকারের অবিলম্বে মুক্তি ও থিয়েটার কর্মীদের উপর হামলার দ্রুত বিচারের দাবি জানান।

মানববন্ধনে ছাত্র ইউনিয়ন বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সভাপতি মিখা পিরেগু বলেন, ‘বাংলাদেশ ধর্মনিরপেক্ষতার নিরিখে গড়ে উঠেছে। সাম্প্রদায়িক শক্তিকে পরাজিত করে রক্তের বিনিময়ে আমরা এ স্বাধীনতা পেয়েছি। সাম্প্রদায়িক শক্তির সাথে আপোষ করেছে এ সরকার। বর্তমানে দেশে সাংস্কৃতিক কর্মী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের একটি অনিরাপদ অবস্থা বিরাজ করছে। মুক্তবুদ্ধির চর্চা ও বাকস্বাধীনতায় আঘাত আনতে পারে এমন সমাজ ব্যবস্থা আমাদের কখনোই কাম্য ছিল না। এদেশকে সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র বানানোর যে চক্রান্ত করা হচ্ছে তা রুখে দিতে আমরা বদ্ধপরিকর।’

সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট (মার্ক্সবাদী) বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি মাহাথির মুহাম্মদ বলেন, ‘এ সমস্ত কর্মকান্ডের মাধ্যমে এ সরকার নিজেকে মৌলবাদী সরকারে রূপান্তিরিত করছে। সাম্প্রদায়িক শক্তির উপর ভর করে অসাম্প্রদায়িকতার মুখোশ পড়ে এ সরকার শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতিকে নষ্ট করতে চাচ্ছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মাহমুদুল হাসান বলেন, ‘যেকোনো ধরনের ভিন্নমত থাকলেই সে ব্যক্তিকে রাষ্ট্র তার আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দিয়ে হয়রানি করছে। বর্তমানে যে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হয়েছে তা আমাদের বাকস্বাধীনতাকে রুদ্ধ করেছে। এ আইনে নিরাপত্তার নামে আমাদের কথা বলার অধিকারকে হরন করা হয়েছে। এ আইন আমাদের সংবিধানেরও পরিপন্থি। আমরা এ আইন বাতিল করার দাবি জানাচ্ছি।’

মানববন্ধনে ছাত্র ইউনিয়ন বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের দপ্তর সম্পাদক আতাউল হক চৌধুরীর সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রকিবুল হক রনি, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের আহ্বায়ক শোভন রহমান প্রমূখ।

এ জাতীয় আরো খবর

সতর্কতা

বাংলালাইভ২৪.কমে প্রকাশিত বা প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© All rights reserved © 2019 BanglaLive24
Theme Developed BY ThemesBazar.Com
themesbazarbanglalive1