ধর্মান্তরিত হওয়ায় মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা বাবার

  •   
  •   
আন্তর্জাতিক ডেস্ক । বাংলালাইভ২৪.কম

আফ্রিকার দেশ উগান্ডায় ইসলাম থেকে খ্রিস্টান ধর্মে ধর্মান্তরিত হওয়ায় এক মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে বাবার বিরুদ্ধে। রাহেমা কায়োমুহেন্দো নামের ওই ধর্মান্তরিত খ্রিস্টান নারী এখন আহত অবস্থায় উগান্ডার এমবালের একটি হাসপাতালে ভর্তি আছেন। আগুনে তার পা, পেট, ঘাড় এবং পিঠের নিচের অংশ পুড়ে গেছে।

ধর্মীয় পর্যবেক্ষণ সংস্থার বরাত দিয়ে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মর্নিং স্টার নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, ব্যবসায়িক কাজে উগান্ডার এমবারা জেলা থেকে এমবালে জেলায় যাচ্ছিলেন ধর্মীয় শিক্ষক শেখ হুসেন বায়ারুহাঙ্গা হুসেইন এবং তার মেয়ে রাহেমা কায়োমুহেন্দো। করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে জারি করা লকডাউনের কারণে গন্তব্যে পৌঁছার আগেই তারা এমবালে জেলার নাউয়ুইইয়ো গ্রামে আটকে যান।

ওই গ্রামে রাহেমা কায়োমুহেন্দো বাবার সঙ্গে তার ফুপুর বাড়িতে আশ্রয় নেন। সেখানেই রেডিও শুনে খ্রিস্টান ধর্মের প্রতি আকৃষ্ট হন রাহেমা কায়োমুহেন্দো।পরে সে এক খ্রিস্টানের সহায়তায় ধর্মান্তরিত হন তিনি।

এ বিষয়ে কায়োমুহেন্দো বলেন, সে যখন খ্রিস্টের বিষয়ে আমার সাথে কথা বলছিল তখন আমি খুব আনন্দিত ছিলাম । কিন্তু হঠাৎ আমার বাবা উঠে যায় এবং তেড়ে এসে আমাকে চর-থাপ্পর ও লাথি মারতে শুরু কররেন। ঘটনার দিন অর্থাৎ ৪ মে কায়োমুহেন্দোর বাবা তার ফুপুকে জানায় যে সে তার মেয়েকে হত্যা করবে। পরে কায়োমুহেন্দোর বাবা তার মেয়ের শরীরে জ্বালানি তেল ঢেলে দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। এই ঘটনার পর কায়োমুহেন্দোর ফুপু তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

উগান্ডা খ্রিস্টান ধর্ম প্রধান একটি দেশ। ২০১৪ সালের একটি পরিসংখ্যান অনুযায়ী দেশটির ৮৪ ভাগ খ্রিস্টান আর মাত্র ১৪ ভাগ মুসলমান।

Share via
Copy link
Powered by Social Snap