1. banglalivedesk@gmail.com : banglalive :
  2. emonbanglatv@gmail.com : Dewan Emon : Dewan Emon
শোক দিবসে আবারও কাঁদলো লালপুর
মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৩:১৯ অপরাহ্ন

শোক দিবসে আবারও কাঁদলো লালপুর

জাহিদুর রহমান, উপদেষ্টা সম্পাদক। বাংলালাইভ২৪.কম
  • আপডেট সময় শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

শোকে মূহ্যমান নাটোরের মোড়দহ। ইতিহাসের নৃশংস ও মর্মস্পর্শী রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ডের শোককে শক্তিতে পরিণত করার শপথ নিলেন হাজারো মানুষ।

সপরিবারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আবারো কাদঁলো লালপুরের মোড়দহ। জনকল্যাণমূলক মানবতার সংগঠন হাফিজ-নাজনীন ফাউন্ডেশনের আয়োজনে শোকের মাসের শেষ শুক্রবার নাটোরের লালপুরের মোড়দহ গ্রামে আয়োজন করা হয় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের।

৩০ আগস্ট দুপুরে লালপুর উপজেলার মোড়দহ গ্রামে ফাউন্ডেশনের নিজস্ব কার্যালয় চত্বরে শোকের আবহে সমবেত হন ৫ হাজারের বেশি মানুষ। ফাউন্ডেশনের সভাপতি হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা ও রংপুর বিভাগের অতিরিক্ত ডিআইজি শাহ মিজান শাফিউর রহমান, ফাউন্ডেশনের সহ-সভাপতি আওয়ামী লীগ নেতা আনিসুর রহমান, বাগাতিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার রহমান প্রমূখ।

আরো উপস্থিত ছিলেন, লালপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন মনি, ওয়ালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান মাষ্টার, লালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খায়রুল বাশার ভাদু, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মান্নান প্রমূখ।

সভা শেষে বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগস্টের সকল শহীদদের রুহের মাগফিরাত কামনায় বিশেষ দোয়ার আয়োজন করা হয়।

ফাউন্ডেশনের সহ-সভাপতি, আওয়ামী লীগ নেতা আনিসুর রহমান জানান,মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জাতির জনকের আদর্শ বাস্তবায়নে মানবতার কল্যানে কাজ করে যাচ্ছে হাফিজ-নাজনীন ফাউন্ডেশন। অসহায়,দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষদের বিভিন্ন সময়ে নানা রকম সহায়তার পাশাপাশি এবার শোক দিবস উপলক্ষ্যে ৫ হাজার মানুষের মাঝে খাবার বিতরণের কর্মসূচী নেয় হাফিজ-নাজনীন ফাউন্ডেশন।

তিনি আরো জানান,মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নতুন প্রজন্মের মাঝে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ছড়িয়ে দেবার পাশাপাশি তৃণমূলে দূর্গত মানুষদের পাশে দাঁড়িয়ে দেশব্যাপী সুনাম কুড়িয়েছে হাফিজ-নাজনীন ফাউন্ডেশন।

বাগাতিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হোসেন জানান,অনগ্রসর এই অঞ্চলে এখন একটি আবেগের নাম হাফিজ-নাজনীন ফাউন্ডেশন।যখন প্রয়োজন হয়েছে,তখনই অসহায় দরিদ্র মানুষদের পাশে এসে দাড়িঁয়ে এই সংগঠন।

নাটোরের তৃনমূলে এখন যেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ছড়িয়ে দেবার অনন্য এক বাতিঘরে পরিণত হয়েছে সংগঠনের এই নিজস্ব ভবন।যেখান থেকে নানা আয়োজনে ছড়িয়ে দেয়া হয় জাতির জনকের আদর্শ আর মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে।

নতুন প্রজন্মকে উজ্জীবিত করা হয় বঙ্গবন্ধুর আদর্শে।তিনি আরো জানান,নাটোরের গর্ব পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি শাহ মিজান শাফিউর রহমান। বাবা ও মায়ের নামে তিনিই গড়ে তুলেছেন এই ‘হাফিজ-নাজনীন ফাউন্ডেশন’।সুবিধা বঞ্চিত মানুষদের কল্যাণে নেপথ্যে নিরন্তর কাজ করে যাওয়া এই পুলিশ কর্মকর্তা নিজেও মিশে আছেন নাটোরের মানুষের আশা, আকাঙ্খা আর আবেগের সাথে।

ঢাকার পুলিশ সুপার থেকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের যুগ্ম কমিশনার। সর্বশেষ অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবে পুলিশের রংপুরে বিভাগে দায়িত্ব পালন করছেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

সকল পরিচয় ছাপিয়ে লালপুরের একজন ‘গর্বিত সন্তান’ হিসেবে শাহ মিজান শাফিউর রহমান শোক দিবস উপলক্ষ্যে যেভাবে ছুটে এসেছেন নিজের মাটি ও মানুষের কাছে,  তা সত্যিই অনুকরণীয়।

এ জাতীয় আরো খবর

সতর্কতা

বাংলালাইভ২৪.কমে প্রকাশিত বা প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© All rights reserved © 2019 BanglaLive24
Theme Developed BY ThemesBazar.Com
themesbazarbanglalive1