ঢাকামঙ্গলবার, ১৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ফকিরহাটে চাচিকে ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা, ভাইপো গ্রেফতার

Link Copied!

ফকিরহাটে চাচিকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কের ঘটনা ঘটিয়েছে ভাইপো আল আমিন বিশ্বাস(৩০) । মামলার বিবরণি সূত্রে জানা যায়- ফকিরহাট উপজেলার লখপুর ইউনিয়নের জাড়িয়া কাহারডাঙ্গা এলাকায় গৃহবধুকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে জাড়িয়া কাহারডাঙ্গা এলাকার সেলিম বিশ্বাসের ছেলে আল আমিন বিশ্বাস (৩০)।

১২ বছর পূর্বে জাড়িয়া কাহারডাঙ্গা এলাকায় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হবার পর, স্বামীর সংসার চলাকালীন সময়ে আল আমিন বিশ্বাস এর সাথে চার বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে বিয়ে করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হন গত ৩ মাস আগে ভুক্তভুগীর স্বামী তাকে ডিভোর্স দিয়ে দেয় ।

পরবর্তিতে আল আমিন বিশ্বাস-কে বিয়ে করার কথা বললে বিয়ে করতে অস্বীকার জানায়। আল আমিন বিশ্বাস শারীরিক সম্পর্কের ভিডিও গোপনে ধারণ করেছে বলে আমাকে প্রায় ভয়ভীতি দিয়ে শারিরীক সর্ম্পক করতে বাধ্য কওে আসছে।

গত রবিবার (১৮ই অক্টোবর) ২টার দিকে আল আমিন এর নিজ ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বার থেকে ফোন করে বিবাহ করিবে বলে জানায় এবং তাহার সাথে দেখা করার জন্য উপজেলার কাটাখালী বাস স্ট্যান্ডে আসতে বলে। ঐদিন সন্ধ্যা অনুমান ৬ টার দিকে কাটাখালী পৌছালে আল আমিন বিশ্বাস তাকে নিয়ে হাটতে হাটতে আল আমিন বিশ্বাস এর নিজ বাড়ির পিছনের পুকুর পাড়ে নিয়ে যায়, সেখানে কিছুক্ষণ কথা বলার পর পুকুর পাড়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে।

ফকিরহাট মডেল থানা পুলিশের এস আই রফিকুল ইসলাম সহ পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে আল আমিন বিশ্বাস-কে আটক করে। ফকিরহাট মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আবু সাঈদ মোঃ খায়রুল আনাম এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন- গত রবিবার থানায় একটি র্ধষন মামলা হয়েছে।

ভিকটিমের ডাক্তারী পরিক্ষার জন্য বাগেরহাট হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে ফকিরহাট মডেল থানায় (৯(১) ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩; ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষন করার অপরাধ) একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে যার নং-১৩।