ঢাকাবৃহস্পতিবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কলাপাড়ায় জলাবদ্ধতা থেকে মুক্ত কৃষকরা

Link Copied!


অবশেষে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় কৃষি জমির জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি পেয়েছে কৃষকরা। উপজেলার ধানখালী ইউনিয়নের পাঁচজুনিয়া গ্রামের প্রভাবশালীদের হাতে দখলে থাকা প্রায় সাড়ে তিন কিলোমিটার খাল অবমুক্ত করে দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহীদুল হক। সোমবার দুপুরে বৃষ্টির মধ্যে তিনি সরকারী এ খালে অবৈধভাবে দেয়া ১৬ টি বাঁধের মধ্যে ১০ টি বাঁধ কেটে দিয়েছেন।

এ সময় উপজেলা পরিষদ চেয়াম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এসএম রাকিবুল আহসান, সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রিয়াজ তালুকদারসহ স্থানীয়রা উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে স্থানীয় প্রভাবশালীরা ওই খালটিতে অবৈধভাবে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করে আসছিলেন। ফলে ওই এলাকার ২ হাজার একর তিন ফসলী জমির পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। আর অনাবাদী ছিলো কৃষি জমি।এখন বাঁধ কেটে দেওয়ায় খুশি কৃষকরা। ওই এলাকার কৃষক শাহাবুদ্দিন হাওলাদার বলেন,তার চার একর জমির ধান গত বর্ষার সময় জলাবদ্ধতার কারনে সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে যায়। বাঁধ কেটে দেওয়ার করনে জলাবদ্ধতা থাকবে না। ক্ষেতের ফসল এখন আর নষ্ট হবেনা।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো.রিয়াজ তালুকদার বলেন, দীর্ঘ বছর ধরে প্রভাবশালীরা খাল দখল করে মাছ চাষ করে আসছিল। সোমবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উপস্থিত থেকে খালের বাঁধগুলো কেটে দিয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহীদুল হক বলেন, ধানখালী ইউনিয়নের পাঁচজুনিয়া গ্রামে সাড়ে তিন কিলোমিটার খালের ১৬ টি অবৈধ বাঁধের মধ্যে ১০টি পয়েন্টে বাঁধ কেটে উন্মক্ত করা হয়েছে। বাকি চারটি বাঁধ বৈরী আবহাওয়ার কারনে কাটা হয়নি। আগামী কাল মঙ্গলবার এ বাঁধ কাটা হবে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।