ঢাকাবৃহস্পতিবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

মোড়েলগঞ্জ পৌরসভায় ৪টি স্পটে সুলভ মূল্যে খাদ্য বিতরণ শুরু

Link Copied!


করোনা কালিন সময়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে গরিব অসহায় ক্ষুদে ব্যবসায়ীদের মাঝে মোড়েলগঞ্জ পৌরসভায় সুলভ মূল্যে বিশেষ ও এমএস-এর কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে।

রোববার বিকেল ৩টায় পৌরসভার ৬ ও ৭ নং ওয়ার্ডে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের উদ্যোগে “আগে আসলে আগে পাবেন” এ স্রোগানকে নিয়ে ওএমএস কার্যক্রমের উদ্ধোধন করেন পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌরসভার মেয়র এস এম মনিরুল হক।

এ সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম, সহকারি কমিশনার (ভূমি) কর্মকর্তা মো. আলিফ হাসান, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রন কর্মকর্তা সোহেল আকতার, স্কাউট লিডার শিক্ষক হরিচাদ কুন্ডু, সংশ্লিষ্ট ডিলার মো. জাহিদুল ইসলাম, ওয়ার্ড কাউন্সিলবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ৪ জন ডিলার প্রতিদিন জনপ্রতি ৩০ টাকা করে ৫ কেজি চাল ও ১৮ টাকা কেজি দরে ৫ কেজি আটা সুলভ মূল্যে বিতরণ করবেন।

এ বিষয়ে পৌরসভার মেয়র এস এম মনিরুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের আমলে কোন মানুষই না খেয়ে থাকবে না। মহামারী করোনার মুর্হুতে সকল শ্রেনী পেশার মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিয়ে আসছেন। তারই ধারাবাহিকতা মোড়েলগঞ্জ পৌরসভা ইতোমধ্যে ক্ষুদে ব্যবসায়ী অসহায় দুস্থদের মাঝে খাদ্য সহায়তা বিতরণ অব্যাহত রেখেছেন। যদি কোন ব্যক্তির ঘরে খাবার না থাকে অনলাইনের মাধ্যমে একটি ফোন পেলেই পৌছে যাবে তার গৃহে খাবার। এ কর্যক্রমও চালু রয়েছে পৌরসভায়।

এ সর্ম্পকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-এঁর নির্দেশনা অনুযায়ী করোনা কালিন সময়ে এ বিশেষ ওএমএস কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ১২দিন ধরে চলমান থাকবে এ কার্যক্রম। প্রতি ডিলারকে প্রতিদিন দেড় টন চাল ও এক টন আটা বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে। সুলভ মূল্যে ডিলাররা পৌরসভার ৪টি স্পটে বিক্রি করবেন।