ঢাকামঙ্গলবার, ৭ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

অসৎ উদ্দেশ্যে আসামিকে জামিন দেন কামরুন্নাহার

অনলাইন ডেস্ক
নভেম্বর ২৫, ২০২১ ১১:৪৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

স্থগিতাদেশ থাকার পরও অসৎ উদ্দেশ্যে ধর্ষণ মামলার আসামিকে জামিন দিয়েছিলেন বহুল আলোচিত-সমালোচিত বিচারক মোসা. কামরুন্নাহার। প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের পাঁচ বিচারপতির আদালতের পূর্ণাঙ্গ রায়ে এ কথা বলা হয়েছে। রায়ে আরো বলা হয়, বাংলাদেশের কোনো ফৌজদারি আদালতে তিনি আর ফৌজদারি মামলা পরিচালনা করতে পারবেন না। এ জন্য সংবিধান অনুযায়ী তাঁর ক্ষমতা কেড়ে নেওয়া হলো।


বাংলালাইভের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন


রায়ে আপিল বিভাগ বলেন, বিচারক মোসা. কামরুন্নাহারকে যখন বলা হয় কেন জামিন দিলেন, তখন তিনি বলেন যে তিনি জানতেন না। কিন্তু নথি পর্যালোচনা করে দেখা যায়, এর আগে ওই ট্রাইব্যুনাল একাধিকবার আসলাম শিকদারের জামিন নামঞ্জুর করেছেন।

আপিল আদালত গত সোমবার ‘রাষ্ট্র বনাম আসলাম সিকদার’ মামলায় স্থগিতাদেশ থাকার পরও জামিন দেওয়ার ব্যাখ্যা শুনতে বিচারক মোসা. কামরুন্নাহারকে তলব করেছিলেন। এরপর প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতির আপিল বেঞ্চে তাঁর বিষয়ে রুদ্ধদ্বার শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। এরপর আদালত মোসা. কামরুন্নাহারের ফৌজদারি বিচারিক ক্ষমতা ‘সিজ করা হয়েছে’ মর্মে আদেশ দেন। গতকাল বুধবার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়েছে।

মোসা. কামরুন্নাহার গত ১১ নভেম্বর ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭-এ থাকার সময় বনানীর রেইনট্রি হোটেলে দুই শিক্ষার্থী ধর্ষণের মামলার রায়ে বিতর্কিত পর্যবেক্ষণের পর ব্যাপকভাবে সমালোচিত হন। এরই প্রেক্ষাপটে ১৪ নভেম্বর সকালে সুপ্রিম কোর্ট তাঁকে বিচারকাজ থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেন।

আরও পড়ুন:

 টি-টেনে চেন্নাইকে ৯ উইকেটে উড়িয়ে দিল বাংলা টাইগার্স

বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্যের মৃত্যুদণ্ডের রায়

ফের বাড়ছে খেলাপি ঋণ

ভারতের সবচেয়ে দামি অভিনেতা প্রভাস, প্রতি ছবিতে পারিশ্রমিক ১৫০ কোটি!

মুক্তিযোদ্ধাকে বাঁচতে গিয়ে প্রাণ গেল দুই এসএসসি পরীক্ষার্থীর

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক

সুদানে একসঙ্গে পদত্যাগ করল ১২ মন্ত্রী

বকেয়া বেতনের দাবিতে মিরপুরে পোশাক শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

ধর্ষণ মামলায় আদালতে মামুনুল

মুড়ি খাওয়ার উপকারিতা